মঙ্গলবার ২৫শে জুন ২০১৯ |

কাতারিদের ওমরাহ নিয়ে সৌদিআরবের মিথ্যাচার

 বুধবার ২২শে মে ২০১৯ দুপুর ০১:৪৮:২৫
কাতারিদের


কাতারি নাগরিকদের ওমরাহ আদায় নিয়ে সৌদিআরব তৃতীয়বারের মতো মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করছে কাতার। সম্প্রতি সৌদিআরবের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়, ১৬ মে রাতে কাতার থেকে ওমরাহ আদায়ে ইচ্ছুক কাতারি নাগরিকরা জেদ্দায় পৌঁছেছেন এবং সৌদি কর্তৃপক্ষ তাদের সব ধরণের সহযোগিতা দিচ্ছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে কাতার ওমরাহ আদায়কে রাজনীতি থেকে দূরে রেখে কাতারের নাগরিকদেরকে হজ ও ওমরাহ আদায়ের জন্য সব ব্যবস্থা পুনরায় চালু করতে সৌদিআরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। ২০১৭ সালের রমজানে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের পর গত দু বছরের মতো এই তৃতীয় বছরে এসেও ওমরাহ আদায়ের সুযোগ থেকে বঞ্চিত রয়েছেন কাতারিরা।

কাতারিদের ওমরাহ আদায়ের আবেদন ও নিবন্ধনের জন্য সৌদিআরব বিশেষ অনলাইন ব্যবস্থা চালু করার দাবি করলেও সেটিকে অকার্যকর ও অসত্য বলে বক্তব্য দিয়েছে কাতার। বরং কাতারে সৌদিআরবের কোনো কূটনৈতিক কার্যক্রম না থাকা ও কাতার এবং সৌদি আরবের মধ্যে সরাসরি ফ্লাইট না থাকাকে সবচেয়ে বড় বাদা হিসেবে আখ্যায়িত করছেন কাতারি নাগরিকরা।

এর আগে ৯ মে আনুষ্ঠানিকভাবে কাতারের ওয়াকফ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সৌদিআরবের প্রতি আহ্বান জানানো হয়, উপসাগরীয় অঞ্চল ও অন্যান্য আরব এবং মুসলিম দেশের নাগরিকরা যেভাবে ওমরাহ আদায়ের সুযোগ পাচ্ছে, সেভাবে যেন কাতারি নাগরিক ও কাতারে বসবাসরত বিদেশিরা সুযোগ পান, তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা যেন সৌদিআরব গ্রহণ করে। এতে বলা হয়, এখনো সৌদিআরব ও কাতারের মধ্যে সব ধরনের আকাশযোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে এবং একমাত্র স্থল সীমান্তও বন্ধ রয়েছে। এটি কাতার থেকে ওমরাহ আদায়ে ইচ্ছুক আগ্রহীদের জন্য সবচেয়ে বড় বাধা তৈরি করছে।

এর পাশাপাশি কাতারে যেসব এজেন্সি ওমরাহ আদায়ের ব্যবস্থা করে থাকে, তাদের সব ধরণের কার্যক্রম সৌদিআরবের বন্ধ রয়েছে। ফলে বিদেশিদের ভিসা নেওয়া থেকে শুরু করে মক্কা-মদিনায় ওমরাহ পালনের সব ব্যবস্থাপনা এক ধরণের অনিশ্চয়তার মধ্যে আটকে আছে।

এর আগে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার পক্ষ থেকে সৌদিআরবের প্রতি কাতারিদের জন্য হজ ও ওমরাহ আদায়ের পথে সব প্রতিবন্ধকতা দূর করার দাবি জানানো হলেও তা আমালে নেয়নি রিয়াদ। ২০১৭ সালের আগের বছরগুলোতে প্রতি বছরের রমজানে বিপুলসংখ্যক কাতারি নাগরিক ও বিদেশিরা কাতার থেকে স্থল ও আকাশপথে ওমরাহ আদায়ের জন্য মক্কায় যেতেন।

কাতারিদের ওমরাহ নিয়ে সৌদিআরবের মিথ্যাচার

কাতারি নাগরিকদের ওমরাহ আদায় নিয়ে সৌদিআরব তৃতীয়বারের মতো মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করছে কাতার। সম্প্রতি সৌদিআরবের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়, ১৬ মে রাতে কাতার থেকে ওমরাহ আদায়ে ইচ্ছুক কাতারি নাগরিকরা জেদ্দায় পৌঁছেছেন এবং সৌদি কর্তৃপক্ষ তাদের সব ধরণের সহযোগিতা দিচ্ছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে কাতার ওমরাহ আদায়কে রাজনীতি থেকে দূরে রেখে কাতারের নাগরিকদেরকে হজ ও ওমরাহ আদায়ের জন্য সব ব্যবস্থা পুনরায় চালু করতে সৌদিআরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। ২০১৭ সালের রমজানে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের পর গত দু বছরের মতো এই তৃতীয় বছরে এসেও ওমরাহ আদায়ের সুযোগ থেকে বঞ্চিত রয়েছেন কাতারিরা।

কাতারিদের ওমরাহ আদায়ের আবেদন ও নিবন্ধনের জন্য সৌদিআরব বিশেষ অনলাইন ব্যবস্থা চালু করার দাবি করলেও সেটিকে অকার্যকর ও অসত্য বলে বক্তব্য দিয়েছে কাতার। বরং কাতারে সৌদিআরবের কোনো কূটনৈতিক কার্যক্রম না থাকা ও কাতার এবং সৌদি আরবের মধ্যে সরাসরি ফ্লাইট না থাকাকে সবচেয়ে বড় বাদা হিসেবে আখ্যায়িত করছেন কাতারি নাগরিকরা।

এর আগে ৯ মে আনুষ্ঠানিকভাবে কাতারের ওয়াকফ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সৌদিআরবের প্রতি আহ্বান জানানো হয়, উপসাগরীয় অঞ্চল ও অন্যান্য আরব এবং মুসলিম দেশের নাগরিকরা যেভাবে ওমরাহ আদায়ের সুযোগ পাচ্ছে, সেভাবে যেন কাতারি নাগরিক ও কাতারে বসবাসরত বিদেশিরা সুযোগ পান, তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা যেন সৌদিআরব গ্রহণ করে। এতে বলা হয়, এখনো সৌদিআরব ও কাতারের মধ্যে সব ধরনের আকাশযোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে এবং একমাত্র স্থল সীমান্তও বন্ধ রয়েছে। এটি কাতার থেকে ওমরাহ আদায়ে ইচ্ছুক আগ্রহীদের জন্য সবচেয়ে বড় বাধা তৈরি করছে।

এর পাশাপাশি কাতারে যেসব এজেন্সি ওমরাহ আদায়ের ব্যবস্থা করে থাকে, তাদের সব ধরণের কার্যক্রম সৌদিআরবের বন্ধ রয়েছে। ফলে বিদেশিদের ভিসা নেওয়া থেকে শুরু করে মক্কা-মদিনায় ওমরাহ পালনের সব ব্যবস্থাপনা এক ধরণের অনিশ্চয়তার মধ্যে আটকে আছে।

এর আগে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার পক্ষ থেকে সৌদিআরবের প্রতি কাতারিদের জন্য হজ ও ওমরাহ আদায়ের পথে সব প্রতিবন্ধকতা দূর করার দাবি জানানো হলেও তা আমালে নেয়নি রিয়াদ। ২০১৭ সালের আগের বছরগুলোতে প্রতি বছরের রমজানে বিপুলসংখ্যক কাতারি নাগরিক ও বিদেশিরা কাতার থেকে স্থল ও আকাশপথে ওমরাহ আদায়ের জন্য মক্কায় যেতেন।


সংশ্লিষ্ট খবর