শুক্রবার ১৯শে জুলাই ২০১৯ |

জুলাইয়ে উড়বে ‘গাঙচিল’

 মঙ্গলবার ২৫শে জুন ২০১৯ রাত ১২:২৭:০৩
জুলাইয়ে

আকাশবীণা এবং হংস বলাকার পর এবার বাংলাদেশ বিমানে যুক্ত হচ্ছে আরেক ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ ‘গাঙচিল’। বিমানবহরে আগামী ২৪ জুলাই যুক্ত হবে তৃতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ মডেলের ওই ড্রিমলাইনার।

আগামী ২৩ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল থেকে বাংলাদেশের পথে যাত্রা করবে ড্রিমলাইনারটি। এর মধ্য দিয়ে বিমানবহরে ড্রিমলাইনারের সংখ্যা দাঁড়াবে ৩টি।

বিমানের সদ্যবিদায়ী মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, চারটি ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজের নাম পছন্দ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেগুলো হলো- ‘আকাশবীণা’, ‘হংসবলাকা’,  ‘গাঙচিল’ ও ‘রাজহংস’।

‘গাঙচিল’ উড়োজাহাজটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে ২৮ জুলাই। তবে এজন্য প্রধানমন্ত্রীর সম্মতির অপেক্ষা করছে বিমান কর্তৃপক্ষ। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনসাপেক্ষে তারিখটি চূড়ান্ত হবে বলে জানা গেছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান ক্রয়ের জন্য ২ দশমিক ১ বিলিয়ন ইউএস ডলারের চুক্তি করে।

বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২৭১টি আসন রয়েছে এবারের ড্রিমলাইনার গাঙচিলে। এর মধ্যে বিজনেস ক্লাস ২৪টি, ইকোনমি ক্লাস ২৪৭টি। বিজনেস ক্লাসের আসন ১৮০  ডিগ্রি পর্যন্ত সম্পূর্ণ ফ্ল্যাটবেড করা সম্ভব। টানা ১৬ ঘণ্টা উড়তে সক্ষম ড্রিমলাইনারে অন্যান্য বিমানের তুলনায় ২০ শতাংশ কম জ্বালানির প্রয়োজন হবে।

ইতিমধ্যে বহরে যুক্ত হয়েছে ৮টি বিমান। আরো একটি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার আসবে সেপ্টেম্বরে।

এদিকে, বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) পদে শেষদিনের মতো অফিসে করেছেন শাকিল মেরাজ। রোববার বিকেলে তিনি বলেন, এই বিভাগে আমার কাজ শেষ হচ্ছে। বাংলাদেশ বিমানের জনসংযোগ বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার পদে নিয়োগ পেয়েছেন তাহেরা খন্দকার। এরপর তিনি কাজ বুঝে নিবেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি শাকিল মেরাজকে বাংলাদেশ বিমানের মোটর ট্রান্সপোর্ট বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট খবর