সোমবার ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ |

থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা

 রবিবার ৮ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ রাত ১২:২৩:২০
থাইল্যান্ডকে

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সিরিয়া থেকে ৬০ হাজার ও লেবানন থেকে ৪০ হাজার ফিলিস্তিনি শরণার্থী গ্রহণ করতে যাচ্ছে কানাডা। ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে লেবাননের সংবাদপত্র আল আকবর এখবর জানিয়েছে। তবে কানাডার অভিবাসন মন্ত্রণালয় এ তথ্য অস্বীকার করেছে।

আল আকবরের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ইস্যুতে আমেরিকা ও কানাডার সমঝোতার ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত আসছে। একই ধরনের সমঝোতা যুক্তরাষ্ট্র-স্পেন এবং ফ্রান্স-বেলজিয়ামের মধ্যেও রয়েছে; যার ফলে পরবর্তীতে লেবানন থেকে ১৬ হাজার ফিলিস্তিনি শরণার্থী গ্রহণ করবে স্পেন।

কর্মকর্তারা অভিবাসন নেটওয়ার্ক ও সংস্থাগুলোর প্রস্তাবিত সুযোগ-সুবিধাগুলো প্রকাশ করেছে। যেসব সংস্থা ফিলিস্তিনের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে সক্রিয় রয়েছে।

ফিলিস্তিনের শরণার্থী বিশেষজ্ঞ তারেক হামমুদ বলেন, যদি এসব সমঝোতা কার্যকর হয়, তবে তা হবে জাতিসংঘের ১৯৪ ও অন্যান্য রেজুলেশনে বর্ণিত আন্তর্জাতিক আইনে ফিলিস্তিনের শরণার্থীদের নিশ্চয়তা দেওয়া মানবাধিকারের ‘স্পষ্ট লঙ্ঘন’।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সম্প্রচারমাধ্যম আরবি২১-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হামমুদ বলেন, কানাডা এই ধরনের চুক্তির জন্য আইনি পরিণতির জন্য দায়বদ্ধ হবে। কারণ তারা ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য মাদ্রিদ কনফারেন্সে শুরু হওয়া বিশেষ কমিটির এক সদস্য দেশ।

তবে কানাডার অভিবাসনমন্ত্রী আহমেদ হুসেনের প্রেস সচিব এই সমঝোতার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কানাডার এমন কোনও চুক্তি নেই। এখন সিরিয়া বা লেবাননের মানুষকে পুনর্বাসনের জন্য এমন কোনও বিশেষ কর্মসূচিও বিবেচনা করা হচ্ছে না।’

সংশ্লিষ্ট খবর