শুক্রবার ১৮ই অক্টোবর ২০১৯ |
ক্রেন দুর্ঘটনা

তিন বাংলাদেশিকে ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে সৌদি সরকার

 সোমবার ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ রাত ১২:৩৪:০২
তিন

মসজিদ আল হারামের নির্মাণকাজে ব্যবহৃত একটি ভ্রাম্যমাণ ক্রেন ভেঙে পড়ে। মক্কা, সৌদি আরব, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৫। ছবি: রয়টার্স

মক্কায় মসজিদ আল হারামে ক্রেন দুর্ঘটনার চার বছর পর হতাহত তিন বাংলাদেশিকে ক্ষতিপূরণ দিয়েছে সৌদি সরকার। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক সামা থেকে নিহত মোহাম্মদ আবুল কাশেম সুফির উত্তরাধিকার এবং আহত সরদার আবদুর রব ও  মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের নামে চেক দেওয়া হয়েছে। রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের  

২০১৫ সালের ১১ সেপ্টেম্বর মক্কায় মসজিদ আল হারামের নির্মাণকাজে ব্যবহৃত একটি ভ্রাম্যমাণ ক্রেন ভেঙে পড়ে। এতে ১১৮ জন মারা যান, আহত হন ৩৯৪ জন। পবিত্র হজ পালনের জন্য হতাহত ব্যক্তিদের বেশির ভাগই তখন মক্কা সফর করছিলেন। নিহত বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে বাংলাদেশের একজন ও আহত ব্যক্তিদের মধ্যে বাংলাদেশের তিনজন ছিলেন।

সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হতাহত তিন বাংলাদেশির পরিচয় নিশ্চিত করার পর সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাঁদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

কূটনৈতিক সূত্রে জানা যায়, হতাহত চারজনের মধ্যে সৌদি কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশে অবস্থানরত নিহত মোহাম্মাদ আবুল কাশেম সুফির উত্তরাধিকারকে প্রায় আড়াই কোটি টাকা (১০ লাখ সৌদি রিয়াল) দিচ্ছে। আর আহত সরদার আবদুর রব ও মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের প্রত্যেককে প্রায় সোয়া এক কোটি টাকা (পাঁচ লাখ সৌদি রিয়াল) দিচ্ছে। এ ছাড়া জেদ্দায় অবস্থানরত আহত মোহাম্মদ নূরের জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষ শিগগিরই সোয়া এক কোটি  টাকার চেক দেবে।

ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শিগগিরই ক্ষতিপূরণ পাওয়া ব্যক্তি ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কাছে ওই চেকগুলো হস্তান্তর করবে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ওই দুর্ঘটনায় নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ লাখ ও আহত ব্যক্তিদের প্রত্যেককে পাঁচ লাখ সৌদি  রিয়াল দেওয়ার নির্দেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট খবর