অনেক নাটকের পর ওমান গেল বাংলাদেশ

বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ-যাত্রার আগে একগুচ্ছ নাটকই যেন হলো! এই ফ্লাইট বাতিলের খবর তো, এই আবার ফ্লাইট আগের সময়ে যাত্রার ঘোষণা! শেষ পর্যন্ত সংশয়ের সব মেঘ কাটিয়ে ওমানের পথে রওনা দিয়েছে বাংলাদেশ দল। গতকাল রোববার রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে রওনা দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহরা।

ওমানে রওনা দিতে গতকাল ৮টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান ক্রিকেটাররা। সেখানে কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর মাহমুদউল্লাহরা জানতে পারেন, ‘ফ্লাইট বাতিল’।

বাংলাদেশ দলের একাধিক সূত্রও সেটিই নিশ্চিত করেছিল আজকের পত্রিকাকে। অবশ্য খানিক পরই বদলে যায় সেই সিদ্ধান্ত। এবারের ঘোষণা, ফ্লাইট যাবে নির্ধারিত সময়েই।

সংশয়টা আসলে তৈরি হয়েছিল দুর্যোগের কারণে। গতকাল বিকেলে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় শাহিন আঘাত হেনেছে ওমানে। বিমানের যাত্রীদের জন্য সতর্কতা জারি করে দেশটির বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ, পেছানো হয় ফ্লাইট সূচিও।

বাংলাদেশ দলের মরুর দেশটির যে বিমানবন্দরে নামার কথা, সেই মাসকাট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নাকি উড়োজাহাজ ওঠানামাও বন্ধ আছে। সন্ধ্যা পর্যন্ত ফ্লাইট বাতিলের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত না হওয়ায় বাংলাদেশ দল যথারীতি চলে যায় বিমানবন্দরে। নাটকটা হলো ক্রিকেটাররা বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পরই।

যাত্রা নিশ্চিত হওয়ার পর বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী আজকের পত্রিকাকে বললেন, ‘দল যাচ্ছে। চ্যালেঞ্জ তো থাকবেই। যেহেতু কিছু অনিশ্চয়তা থাকছে। তবে রওনা তো দেওয়া গেল। মাসকাটেই অবতরণ করবে দল।’টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এর আগে কখনো নক আউট পর্বের বাধা পেরোতে না পারলেও এবার বড় আশা নিয়েই যাচ্ছে বাংলাদেশ।

এই আশার পেছনে রসদ জোগাচ্ছে গত তিন মাস ঘরে-বাইরে তিনটি দুর্দান্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়। দল জয়ের ধারায় থাকায় স্বাভাবিকভাবেই আত্মবিশ্বাসের চূড়ায় আছেন মাহমুদউল্লাহরা। ভালোভাবে প্রস্তুতি সারতে বিশ্বকাপ শুরুর ১৩ দিন আগেই ওমানে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। 

দলের সঙ্গে ওমান যাচ্ছেন হাবিবুল বাশার সুমন। বিমানবন্দরে রওনা দেওয়ার আগে বিসিবির এই নির্বাচক আজকের পত্রিকাকে বলেছেন, সময়টা কাজে লাগাতে চায় বাংলাদেশ, ‘আমরা বেশ আগেভাগে যাচ্ছি। অনুশীলন ও প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে বিশ্বকাপের আগে ভালোভাবে প্রস্তুত হতে চাই।’

আর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রওনা দেওয়ার আগে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মলিন রেকর্ড ভাঙার কথা  বলেছেন, ‘আমরা যাচ্ছি, সবাই দোয়া করবেন। আমাদের বড় সুযোগ বিশ্বকাপে ভালো করার। আমরা যেভাবে গত সিরিজগুলো খেলেছি সেভাবে যদি দল হিসেবে খেলতে পারি, ভালো কিছু হবে। আমরা চেষ্টা করব কোয়ালিফায়ার রাউন্ডে ঠিকভাবে উতরে মূল পর্বে যেতে। যত বেশি সম্ভব ম্যাচ জেতা যায়, সেই চেষ্টা থাকবে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আমাদের আগের রেকর্ড ভালো না। চেষ্টা থাকবে সেই রেকর্ড ভাঙার।’

,