ওমিক্রন রোধে বিদেশি পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করছে জাপান

করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়া রোধে সব বিদেশি পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করছে জাপান।

সোমবার জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা বলেছেন, ‘জাপানে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি এড়াতে আমরা জরুরি সতর্কতা হিসেবে এই পদক্ষেপ নিচ্ছি।’

তিনি বলেন, এই ব্যবস্থা মঙ্গলবার থেকে কার্যকর হবে।

এই সিদ্ধান্তের অর্থ জাপান সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ আবার কঠোর করবে, যা এই মাসের শুরুতে স্বল্পমেয়াদীভাবে ব্যবসায়ী, বিদেশি ছাত্র ও শ্রমিকদের জন্য শিথিল করা হয়েছিল।

নতুন ওমিক্রন ভেরিয়েন্টের আরো বিস্তারিত না জানা পর্যন্ত কিশিদা জনগনকে মাস্ক ব্যবহার এবং অন্যান্য মৌলিক অ্যান্টি-ভাইরাস ব্যবস্থা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

অনেক দেশ তাদের সীমানা নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে। যদিও বিজ্ঞানীরা সতর্ক করেছেন যে, নতুন ভ্যারিয়েন্টটি অন্যান্য ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে বেশি উদ্বেগজনক কি না তা পরিষ্কার নয়।

এ ভ্যারিয়েন্টটি কয়েকদিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকার গবেষকরা চিহ্নিত করেন। তবে এটি আরো সংক্রামক কী না, গুরুতর অসুস্থতার কারণ হতে পারে বা ভ্যাকসিনের সুরক্ষা এড়াতে সক্ষম কী না সেসব ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায় নি।

এদিকে ইসরাইল বিদেশিদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া মরক্কো জানিয়েছে সোমবার থেকে দুই সপ্তাহের জন্য সব ফ্লাইট স্থগিত করেছে।

নেদারল্যান্ডসে রোববার ১৩টি ওমিক্রন রোগী শনাক্ত হয়েছে এবং কানাডা ও অস্ট্রেলিয়ায় দু’জনের এই ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা ও দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যান্য সাতটি দেশ থেকে ফ্লাইট নিষিদ্ধ করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

Loading...
,