১৩ দেশ থেকে করোনার টিকা ছাড়া বাংলাদেশে গেলে হোটেল কোয়ারেন্টাইন

করোনার কারণে বাংলাদেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়া এবং অন্য দেশ থেকে বাংলাদেশে আসার ক্ষেত্রে বেবিচকের পক্ষ থেকে যেসব নিষেধাজ্ঞা ও নির্দেশনা ছিল সেগুলো তুলে নেওয়া হয়েছে।

অর্থাৎ এখন থেকে পৃথিবীর যে কোনো দেশে (সে দেশের বিধিনিষেধ অনুযায়ী) যাওয়া বা সেসব দেশ থেকে বাংলাদেশে আসার ক্ষেত্রে আর নিষেধাজ্ঞা থাকছে না।

তবে ১৩টি দেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য কিছু বিধিনিষেধ থাকবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

বেবিচকের ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড রেগুলেশন বিভাগের সদস্য গ্রুপ ক্যাপ্টেন চৌধুরী এম জিয়া উল কবির স্বাক্ষরিত এক সার্কুলারে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কিছু নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়া দেশগুলো হলো- আরমেনিয়া, বুলগেরিয়া, এস্তোনিয়া, জর্জিয়া, লাটভিয়া, মলডোভা, ফিলিস্তিন, মঙ্গোলিয়া, রোমানিয়া, সার্বিয়া, স্লোভেনিয়া ও ইউক্রেন।

সার্কুলারে বেবিচক জানায়, এসব দেশ থেকে যারা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত যে কোনো একটি করোনার টিকার পূর্ণাঙ্গ ডোজ নিয়ে বাংলাদেশে আসবেন তাদের সাত দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এছাড়া যারা টিকা ছাড়া আসবেন তাদের সাত দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

এছাড়া এই ১৩ দেশ ব্যতীত অন্যান্য দেশের যাত্রীরা যদি টিকার পূর্ণাঙ্গ ডোজ নিয়ে দেশে আসেন, সেক্ষেত্রে তাদের কোনো কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না। আগে তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হতো।

এই ১৩ দেশ ব্যতীত অন্যান্য দেশের যাত্রীরা টিকার পূর্ণাঙ্গ ডোজ না নিয়ে বাংলাদেশে আসতে পারবেন। তবে তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

আদেশটি ২৪ অক্টোবর থেকে কার্যকরের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে চলতি বছরের আগস্টে টিকা ছাড়া ১১টি দেশের নাগরিকদের বাংলাদেশে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল বেবিচক। দেশগুলো হচ্ছে- আর্জেন্টিনা, বতসোয়ানা, কিউবা, সাইপ্রাস, এসওয়াতিনি, জর্জিয়া, ইরান, লিবিয়া, মালয়েশিয়া, মঙ্গোলিয়া, স্পেন।

তবে এখন থেকে টিকা না নিলেও দেশে প্রবেশের সুযোগ থাকছে। সেক্ষেত্রে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে যাত্রীদের।

বেবিচক জানিয়েছে, বাংলাদেশে আগত যাত্রীদের মধ্যে কারো যদি করোনার লক্ষণ-উপসর্গ দেখা যায় তাহলে তাকে ৭ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে সরকার নির্ধারিত হোটেলে থাকতে হবে। ৭ দিন পর তারা করোনা পরীক্ষা করাবে। নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে কোয়ারেন্টাইন শেষ করবে।

এছাড়া যেসব যাত্রী বাংলাদেশে আসবে এবং বাংলাদেশ ছেড়ে যাবে তাদের ফ্লাইটের ৭২ ঘণ্টা আগে আরটি পিসিআর পরীক্ষা করে নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিতে হবে। তবে ১২ বছরের নিচে কোনো শিশুর ক্ষেত্রে এই বাধ্যবাধকতা নেই।

বিদেশি কূটনীতিকদের কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত গাইডলাইন মানতে বলা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তা ও স্থানীয় প্রশাসনকে কোয়ারেন্টাইনের বিষয়গুলো নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

,