কাতার এয়ারওয়েজে বোমা আতঙ্ক: পরে যা ঘটলো

বোমা আছে, যাত্রীর এমন চিৎকারে আতঙ্ক ছড়াল ভারতের কলকাতা বিমানবন্দরে ব্রিটেনগামী কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে। তারপর দ্রুত উড়োজাহাজ খালি করে শুরু হয় তল্লাশি।

আনা হয় স্নিফার ডগ। সব যাত্রীদের নামিয়ে বিমান তন্নতন্ন করে খুঁজেও সন্দেহজনক কিছু মেলেনি।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন

বিমানবন্দর সূত্রে খবর, কলকাতা থেকে দোহাগামী একটি বিমানে মঙ্গলবার সকালে বোমার আতঙ্ক ছড়ায়। কাতার এয়ারওয়েসের বিমানটিতে ১৮৬ জন যাত্রী ছিলেন।

বিমানটি ওড়ার কয়েক মিনিট আগে এক যাত্রী বলে ওঠেন, বিমানে বোমা রয়েছে।

তিনি জানান, অজ্ঞাতপরিচয় কেউ তাকে এই তথ্য দিয়েছেন।

তার কথা শোনার পর ঝুঁকি নেননি কর্তৃপক্ষ। তৎক্ষণাৎ খবর দেয়া হয় বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্স (সিআইএসএফ)-কে।

সিআইএসএফ-এর কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন এবং বিমানটি খালি করা হয়। ১৮৬ জন যাত্রীকেই বিমান থেকে নামিয়ে বোমার অনুসন্ধান করেন নিরাপত্তারক্ষীরা। এমনকি, বোমা খুঁজতে নিয়ে আসা হয় প্রশিক্ষিত কুকুরও।

 কাতারে চাকরি খুঁজছেন? এখানে ক্লিক করুন

এদিকে ওই যাত্রীর বাবা জানান, তার পুত্রের কিছু মানসিক সমস্যা রয়েছে। সেই সংক্রান্ত স্বাস্থ্যপরীক্ষার রিপোর্টও কর্তৃপক্ষকে দেখান তিনি। অনুসন্ধান শেষে যাত্রীদের আবার বিমানে তোলা হয়।

দোহার উদ্দেশে সেটি রওনা দেয় সকাল ৯টায়।

আরো পড়ুন

Janakantha

Loading...
,