কাতারে পুরোদমে চলছে গণপরিবহণ বৈদ্যুতিকরণের কাজ

কাতার ২০৩০ সালের মধ্যে সব ধরনের গণপরিবহণ বৈদ্যুতিক করে ফেলার পরিকল্পনা করেছে। ইতোমধ্যে কাতার এটির লক্ষ্য পূরণে বহুদূর এগিয়ে গেছে।

এই লক্ষ্য অর্জনে কর্তৃপক্ষ কাতারের বিভিন্ন জায়গায় বৈদ্যুতিক চার্জিং স্টেশন স্থাপন করেছে। পাশপাশি চালু করেছে বেশকিছু বৈদ্যুতিক বাস সার্ভিস।

জ্বালানীর উপর নির্ভরতা কমিয়ে দেশের পরিবহণ ব্যবস্থাকে বৈদ্যুতিক করার ক্ষেত্রে কাতার মধ্যপ্রাচ্যে সবার উপরে অবস্থান করছে।

কারওয়া এটির সব ট্যাক্সিকে হাইব্রিড বৈদ্যুতিক গাড়িতে রুপান্তর করার ঘোষণা দিয়েছে।

কাতার ট্রান্সপোর্টেশন অ্যান্ড ট্রাফিক সেফটি সেন্টারের পরিচালক ডঃ মোহাম্মদ ওয়াই আল কারাদাউই বলেন, দেশে জ্বালানির ব্যবহার কমাতে পরিবহন খাত বিদ্যুতায়ন করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কাতারসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের আবহাওয়ায় সূর্যের প্রচন্ড তাপের ফলে বিশ্বের অন্যান্য জায়গার তুলনায় এখানে সৌরশক্তির সম্ভাবনা অনেক বেশি।

সুতরাং, কাতার যদি সৌর শক্তির ব্যবহার বাড়ায় তাহলে বৈদ্যুতিক যানবাহন থেকে দেশটি সর্বাধিক সুবিধা পাবে। পাশাপাশি উপসাগরীয় অঞ্চলে একটি অত্যাধুনিক ও টেকসই পরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে পারবে।

গালফ বাংলার হোয়াটসঅ্যাপে এড হোন এখানে ক্লিক করে

আজকের আরও খবর

গালফ বাংলা

Loading...
,