কাতারে রমজান মাসে প্রকাশ্যে খাওয়া-দাওয়া করলে শাস্তির আইন

পবিত্র রমজান মুসলমানদের জন্য সিয়াম সাধনার মাস। এই মাসে মুসলমানরা আল্লাহর হুকুমে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপবাস করেন।

রমজান মাস তাই কাতারসহ বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের কাছে অতি পবিত্র এবং গুরুত্বপূর্ণ মাস। এই মাসের প্রতি সম্মান দেখাতে সবসময় সচেষ্ট থাকেন মুসলমানরা।

আর তাই কাতারসহ অন্যান্য আরব ও মুসলিম দেশগুলোতে রোজার মাসে দিনের বেলায় প্রকাশ্যে খাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

বরং কেউ যদি রমজান মাসে প্রকাশ্যে দিনের বেলায় কিছু খায় বা পান করে, তবে সেজন্য রয়েছে শাস্তির আইন। কারণ এতে মুসলমানদের অনুভূতিতে আঘাত হানা হয়।

গালফ বাংলার হোয়াটসঅ্যাপে এড হোন এখানে ক্লিক করে

কাতারের শাস্তি আইনের ২৬৭ নং ধারায় বলা আছে, কেউ যদি পবিত্র রমজান মাসে দিনের বেলায় প্রকাশ্যে কিছু খায় বা পান করে, তবে তাকে তিন মাসের জন্য জেল এবং সর্বোচ্চ তিন হাজার রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করা হবে।

আদালত চাইলে তাকে জেল এবং জরিমানা দুটোই অথবা যে কোনো একটি শাস্তি নির্ধারণ করতে পারেন।

কাতার থেকে এখন দেশে গেলে কি বিশ্বকাপের আগে আসা যাবে?

কুয়েতের আইনে এমন ব্যক্তিকে ১০০ দিনার জরিমানা এবং এক মাসের জেল দেওয়া কথা রয়েছে। একইভাবে কেউ যদি কাউকে জোর করে রোজা ভাঙায় অথবা কিছু খেতে প্ররোচিত করে, তবে তাকেও এই দন্ড দেওয়া হবে।

সৌদিআরবে এমন ব্যক্তির বেলায় জেল ও বেত্রাঘাতের আইন রয়েছে।

কাতারে বন্য কুকুরের আক্রমণে অর্ধ শতাধিক হরিণের মৃত্যুর ভিডিও

কাতারের আরও খবর

Loading...
,