কাতারে সড়ক দুর্ঘটনার ছবি তুললে ২ বছরের জেল, ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা

কাতারে কোথাও সড়ক দুর্ঘটনা হলে মোবাইলে সেটার ছবি তোলা বা ভিডিও করা দন্ডনীয় অপরাধ।

কেউ যদি এমন দুর্ঘটনার ছবি তোলা বা ভিডিও করার সময় ধরা পড়েন, তবে তাকে কাতারের আইন অনুসারে দু বছরের জেল অথবা সর্বোচ্চ ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হতে পারে।

এছাড়া কাতারে কেউ সাইবার ক্রাইমের শিকার হলে দ্রুত পুলিশকে জানানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছে পুলিশ। কারণ সাইবার ক্রাইমের ক্ষেত্রে যদি দেরি করে রিপোর্ট করা হয় তাহলে অপরাধের প্রমাণে হেরফের হয়ে যেতে পারে।

কাতার পুলিশ জানায়, সাইবার ক্রাইমের শিকার হওয়ার পর অপরাধ সম্পর্কে দ্রুত ইকোনমিক অ্যান্ড সাইবার ক্রাইম কমবেটিং ডিপার্টমেন্টকে জানাতে হবে।

আর তা জানাতে এই অফিসের ই-মেইল, ফোন, মিতরাশ-২ অথবা অন্য কোনো মাধ্যম ব্যবহার করা যাবে।

কাতারে কাউকে ব্ল্যাকমেইল করলে ৩ বছরের জেল ও ১ লাখ রিয়াল জরিমানা অথবা এই দুটির যে কোনো একটি শাস্তি হতে পারে।

কাতারের আইনে সাইবার ক্রাইম বলা হয়, আইন লঙ্ঘন করে তথ্য প্রযুক্তি বা ইন্টারনেটের ব্যবহারে কোনো খারাপ কাজ করা। সাইবার ক্রাইমের মধ্যে রয়েছে হ্যাকিং, প্রতারণা, কাউকে হুমকি, ব্ল্যাকমেইলিং, শিশুদের যৌন হয়রানি এবং গুজব ছড়ানো।

৯ ফেব্রুয়ারি ‘সাইবার এন্ড ফাইনানশিয়াল ক্রাইমস’ নামে এক ওয়েবিনারের আয়োজন করে ইকোনমিক অ্যান্ড সাইবার ক্রাইম কমবেটিং ডিপার্টমেন্ট। ওয়েবিনার চলাকালীন কাতার পুলিশের কর্মকর্তারা এসব তথ্য উল্লেখ করেন।

এ সময় ইমেইলের মাধ্যমে সম্প্রতি যেসব প্রতারণার ঘটনা ঘটছে, সেগুলোর ব্যাপারেও সবাইকে সচেতন থাকতে বলা হয়। এছাড়া কখনোই কাউকে নিজের ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ড নাম্বার অথবা ব্যক্তিগত তথ্য না জানাতে আহবান জানানো হয়।

হোয়াটসঅ্যাগে সব খবর পেতে চাইলে যুক্ত হোন এই গ্রুপে

কাতারের গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে এখানে ক্লিক করে পেজে লাইক দিয়ে রাখুন

নিচের দিকে স্ক্রল করে আরও গুরুত্বপূর্ণ খবর পড়ুন

Loading...
,