কাতার ও বাংলাদেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক চুক্তি স্বাক্ষর

কাতারের দোহায় বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যে সংস্কৃতি বিষয়ে সহযোগিতা সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বাংলাদেশের পক্ষে ইসলামিক বিশ্বের ১২তম সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য বর্তমানে দোহা সফররত সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জনাব কে এম খালেদ, এম.পি এবং কাতারের পক্ষে দেশটির সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী শেখ আবদুল রহমান বিন হামাদ বিন জসিম বিন হামাদ আল থানি ২৬ সেপ্টেম্বর এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

কাতারে বিভিন্ন কোম্পানিতে চাকরির খবর দেখতে এখানে ক্লিক করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাতারে দুটি সফরের অব্যবহিত পরেই এই চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে ভাতৃপ্রতিম দুই দেশের মধ্যে সংস্কৃতি বিষয়ে সম্পর্ক আরও জোরদার হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

ফলে বন্ধুত্বপূর্ণ দুইটি দেশের মধ্যে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিনিধি দলের নিয়মিত সফর বিনিময়, সংস্কৃতি সংক্রান্ত বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও মেলা আয়োজনের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সংস্কৃতি বন্ধন আরো অটুট হবে।

এছাড়াও এই চুক্তি বাংলাদেশের সমৃদ্ধ ঐতিহ্য, ইতিহাস ও সংস্কৃতি কাতারে স্থানীয় জনগণ ও বাংলাদেশ কমিউনিটির নতুন প্রজন্মের মাঝে তুলে ধরার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

কাতারে কোথায় কী অফার চলছে- দেখতে ক্লিক করুন এখানে

বাংলাদেশ ও কাতার উভয় দেশের মন্ত্রীগণ চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যে দ্বিপক্ষীক সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য দিন হিসেবে উল্লেখ করেন।

আগামী বছর বাংলাদেশ ও কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে এই চুক্তির অধীনে সাংস্কৃতিক সহযোগিতা সংক্রান্ত বেশ কিছু অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যেতে পারে বলে উভয় মন্ত্রী মতামত প্রদান করেন।

চুক্তি স্বাক্ষরের পর উভয় দেশের মন্ত্রীগণ এক দ্বিপক্ষীক সৌজন্য বৈঠকে মিলিত হন এবং সাংস্কৃতিক সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা করেন।

এ সময়ে কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম,কাতারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এবং দূতাবাসের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

Loading...
,