নওমুসলিম ও শিশুদের জন্য কাতারের তৈরি স্মার্ট জায়নামাজে ব্যাপক সাড়া

কাতারের তৈরি করা নামাজ শেখানোর জন্য আধুনিক প্রযুক্তির শিক্ষামূলক জায়নামাজ ইতোমধ্যে সবার কাছে ভালো সাড়া জাগিয়েছে।

বিশেষ করে নওমুসলিম ও শিশুদের ব্যবহারের জন্য তৈরি এই জায়নামাজের ব্যাপারে বিপুল সাড়া পাওয়ায় কাতারের ”থাকা টেকনোলজিস” উদ্ভাবনী এই স্মার্ট ও শিক্ষামূলক জায়নামাজটির উৎপাদন বাড়ানোর জন্য প্রস্তুত।

থাকা টেকনোলজিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা আব্দুর রহমান সালেহ খামিস বলেন, উদ্ভাবনী প্রযুক্তিতে তৈরি এই জায়নামাজের উৎপাদন বাড়ানোর চেষ্টার পাশাপাশি কোম্পানি শীঘ্রই প্রি-অর্ডারগুলো সম্পূর্ণ করতে চাইছে।

পাশাপাশি এই উদ্ভাবনী জায়নামাজ আরও বেশি তৈরি করা হবে। জায়নামাজটি সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা হলো, এটি নতুন মুসলিম ও শিশুদের প্রযুক্তির সাহায্যে নামাজ শেখাতে সাহায্য করবে। এটি নামাজের প্রশিক্ষণ দেবে এবং পবিত্র কোরআনও তেলাওয়াত করবে।

সালেহ খামিস আরও বলেন, আমাদের ক্রাউড ফান্ডিং এবং প্রি –অর্ডারের সময় মানুষের প্রতিক্রিয়া ছিলো অসাধারণ। তখন আমরা মাত্র এক ঘন্টার মধ্যে আমাদের অর্ডারের লক্ষ্য অর্জন করেছিলাম। তারপর ক্রাউড ফান্ডিং চালু হওয়ার পর ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তা দ্বিগুণ হয়ে যায়।

খামিসের মতে সবচেয়ে ভালোলাগার বিষয় হলো, মোট প্রি অর্ডারের ৫৫ শতাংশ অর্ডার এসেছে কাতারের বাইরে থেকে। বিশেষ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর এবং অস্ট্রেলিয়া থেকে সবচেয়ে বেশি প্রি অর্ডার এসেছে।

জায়নামাজটির মধ্যে একটি LED ডিসপ্লেসহ আরবি, ইংরেজি ভাষা সাপোর্ট করবে। ডিসপ্লেটিতে পবিত্র কোরআনের আয়াত দেখানো হবে। কোরআন তেলাওয়াত শুনা যাবে। নামাজ পড়ার সময় কিসের পরে কি করতে হবে সেটির নির্দেশনা দেওয়া হবে।

সাজদাহ মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে জায়নামাজটিকে স্মার্টফোন ও অ্যাপল ওয়াচের সাথে যুক্ত করা যায়।

পবিত্র কোরআনের নির্দিষ্ট আয়াত জায়নামাজটির ডিসপ্লেতে সেট করা যাবে, যা নামাজের সময় দেখা যাবে। এটিতে নামাজের গতিও নির্ধারণ করা যাবে।

তিনি আরও বলেন, জায়নামাজটিকে আরও আপডেট করার চেষ্টা চলছে। কিনতে আগ্রহীদের জন্য আমরা এটিকে আরও সাশ্রয়ী করার চেষ্টা করছি।

,