টিকটক করতে না দেওয়ায় কাতার প্রবাসীর শিশুর আত্মহত্যা!

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে টিকটক ব্যবহার করতে না দেওয়ায় সাজ্জাদ হোসেন হিমেল (১০) নামে এক শিশু আত্মহত্যা করেছে।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুরে উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।   সাজ্জাদ রাখালিয়া গ্রামের কাতার প্রবাসী মো. খোকনের ছেলে।

পরিবার সূত্র জানায়, টিকটক ব্যবহারের জন্য সাজ্জাদ তার মা রুমি আক্তারের কাছে মোবাইল চেয়েছিল।

কিন্তু মা তাকে মোবাইল দেয়নি। ঘরে তালা দিয়ে তাকে ঘরে আটকে রেখে তিনি গোসল করতে যান।

গোসল থেকে ফিরে দরজার তালা ভেঙে ঘরে ঢুকলেই দেখা যায় সাজ্জাদের গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় জানালার গ্রিলের সঙ্গে পড়ে আছে। তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সাজ্জাদের মা রুমি আক্তার জানান, টিকটক ভিডিওতে সাজ্জাদ একজন মেয়ে মডেলের আত্মহত্যার ভিডিও দেখে। সাজ্জাদও ওইরকম ভিডিও বানানোর জন্য চেয়েছিল।

তার দাবি ছিল- আত্মহত্যার চেষ্টার ভিডিও বানালে সে মারা যাবে না। কিন্তু তিনি তাকে ভিডিও বানাতে দেয়নি। এজন্য ফের সে মোবাইল চাইলে ভয়ে দেওয়া হয়নি। অবশেষে গলায় ফাঁস দিয়েই ছেলেটি তার কোল শূন্য করে বিদায় নিয়েছে।

রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহমুদ হাসান বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটি মারা গেছে। তার চিকিৎসার সুযোগ ছিল না। 

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিপন বড়ুয়া বলেন, শিশুটি আত্মহত্যা করেছে। পরিবারের কোনো অভিযোগ ছিল না। এজন্য আইনগত প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্ত ছাড়াই শিশুটির মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গালফ বাংলার হোয়াটসঅ্যাপে এড হোন এখানে ক্লিক করে

কাতারের আরও খবর

কালের কণ্ঠ

Loading...
,