ডলারের বদলে রুপিতে ভারতের সঙ্গে ব্যবসা করবে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ শিগগিরই মার্কিন ডলারের পরিবর্তে রুপি ব্যবহার করে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য শুরু করতে পারে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক সম্প্রতি একটি পরীক্ষা করেছে।

ডলারের পরিবর্তে রুপি ব্যবহারের সম্ভাবনা ও সুযোগ নিয়ে গত মন্ত্রিসভার বৈঠকে লিখিত সুপারিশ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন

বর্তমানে বাংলাদেশ ভারতে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করে।

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ২ বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্যের মাধ্যমে রুপির ব্যবহার শুরু হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ বিষয়ে সব ধরনের যাচাই-বাছাই কাজ প্রায় শেষ করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন নির্বাহী পরিচালক গণমাধ্যমকে বলেন, কিছু বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক সিদ্ধান্তের পরই উভয় দেশে রুপিতে লেনদেন চালু করা হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের ব্যাংকিং সিস্টেমগুলোকে রুপি ব্যবহারের জন্য পৃথক চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে হবে।

ইতোমধ্যে ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি একটি প্রস্তাব আকারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে মোট বাণিজ্য হিসাব জমা দিয়েছে। বিদ্যমান ডলার সংকট কাটাতে এ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক বলেন, মার্কিন ডলারের পরিবর্তে রুপি ব্যবহার করে ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্যের বিষয়টি এখনো পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে।

কাতারে চাকরি খুঁজছেন? এখানে ক্লিক করুন

কিছু সমস্যা এখনো নিষ্পত্তির প্রয়োজন রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কিছু দ্বিপাক্ষিক সমস্যা আছে যেগুলোর সমাধান করা দরকার। এ বিষয়ে ব্যাংকগুলোকে প্রস্তুতি নিতে হবে। তবে এ বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত হবে। ’

এলসি খোলার জন্য নির্দিষ্ট বার্ষিক ডলার কোটা থাকবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের চাহিদা অনুযায়ী এলসি খোলা হবে।

মেজবাউল হক বলেন, ‘আমরা ভারত থেকে রপ্তানির চেয়ে বেশি আমদানি করছি। এ কারণে বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে। ফলে টাকার পরিমাণও বিবেচনা করা হচ্ছে।

বর্তমানে ভারত রাশিয়া, মরিশাস, ইরান এবং শ্রীলঙ্কার সঙ্গে রুপিতে ব্যবসা করছে।

গত বছরের ২২-২৩ ডিসেম্বর ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত বাণিজ্য বিষয়ক বাংলাদেশ-ভারত মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে ভারত উভয় দেশের জন্য বাণিজ্যের মাধ্যম হিসাবে রুপি চালু করার প্রস্তাব করেছিল।

তারপর ২৪-২৫ ফেব্রুয়ারি ভারতের বেঙ্গালুরুতে অনুষ্ঠিত জি-২০ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরদের বৈঠকের ফাঁকে বিনিময় মুদ্রা হিসাবে ডলারকে স্থানান্তরিত করার বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা হয়েছিল।

সেখানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার এবং রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার গভর্নর শক্তিকান্ত দাস মার্কিন ডলারের পরিবর্তে রুপি ব্যবহারের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেন।

আরো পড়ুন

ABNews

Loading...
,