তালেবান সরকারের অভিষেক অনুষ্ঠানে ৬ দেশ আমন্ত্রিত

নতুন সরকার গঠনের দ্বারপ্রান্তে তালেবান। গত শুক্রবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণার কথা ছিল।

পরে দুদফা পিছিয়ে প্রথমে জানানো হয় শনিবার, পরে বলা হয় সবপক্ষের অংশগ্রহণে আগামী সপ্তাহেই নতুন সরকারের ঘোষণা।

আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন সরকারের অভিষেকে অংশ নিতে দলটির পক্ষ থেকে রাশিয়াসহ ৬টি দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে রাশিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা তাস জানিয়েছে, আমন্ত্রন পাওয়া ৬টি দেশ হলো রাশিয়া, চীন, তুরস্ক, পাকিস্তান, ইরান ও কাতার। তালেবান ওই নেতা জানান, আমরা ইতোমধ্যে এসব দেশকে নতুন সরকারের ঘোষণার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আমন্ত্রন জানিয়েছি।

তবে আফগানিস্তানে বিপুল বিনিয়োগ করা ভারত কিংবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে আমন্ত্রন জানানো হয়নি।

সোমবার তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, কয়েকদিনের মধ্যেই দেয়া হবে নতুন সরকারের ঘোষণা। রাজধানী কাবুলে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান তিনি। বলেন, সবপক্ষের অংশগ্রহণে এমন সরকার গঠন করা হবে যা দেশে ও বিদেশের সবার কাছে গ্রহণযোগ্য হবে।

১৫ আগস্ট তালেবানরা আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল করার পর সংযুক্ত আরব আমিরাতে পালিয়ে যান দেশটির তত্কালীন প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি।

এরপর ৩১ আগস্ট ডেডলাইন মেনে সরে যায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদেশগুলোর সেনাসদস্যরা। সরিয়ে নেয়া হয় বিদেশিসহ নিরাপত্তা ঝুঁকিতে থাকা প্রায় সোয়া লাখ আফগান নাগরিককে। এরপর তিন সপ্তাহেও ঘোষণা করা হয়নি নতুন সরকার।

,