পশ্চিমাদের চোখ রাঙানির তোয়াক্কা না করে চমক দেখাচ্ছে কাতার

মানবাধিকার কিংবা মদ্য-বিয়ার বিক্রি সব ইস্যুতেই এবারের কাতারের সমালোচনায় মুখর ছিল পশ্চিমারা। কোথাও কোথাও তো এই বিশ্বকাপ বয়কটের ডাকও উঠেছিল।

সেখান থেকেই ধারণা করা হয়েছিল কাতার বিশ্বকাপের আমেজ কিংবা টিকেট বিক্রিতে পশ্চিমাদের এমন কাণ্ডের বড় প্রভাব পড়বে। তবে ঘটনা ঘটছে উল্টো।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে এখানে ক্লিক করুন

চড়া দামের পরও ৩০ লাখ টিকিট বিক্রি করেছে কাতার। শুরুতে বিক্রি হওয়া টিকিটের বেশির ভাগই কিনে নিয়েছিল কাতার, সৌদি আরব, মেক্সিকো, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও ভারতের মানুষ।

টিকিট বিক্রিতে তরতর করে এগিয়ে যাওয়ার রেশ ধরে আরেকটি সুসংবাদ পেয়েছে কাতার। ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে বিশ্বকাপ সম্প্রচারের শীর্ষে উঠে এসেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। ব্রাজিলের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম ইউওএলে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বিষয়টি উঠে এসেছে।

এখানে ক্লিক করুন এবং পছন্দের চাকরি বেছে নিন

প্রতিবেদন বলছে, বিশ্বের ২২৫টি অঞ্চলের মানুষ টেলিভিশন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইসে কাতার বিশ্বকাপ সরাসরি উপভোগ করছেন।

২০১৪ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ দেখতে পেরেছেন ২২৩টি অঞ্চলের মানুষ। আর ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ দেখা গেছে ২১২টি অঞ্চলে। রেকর্ড ৫০০ কোটি মানুষ কাতার বিশ্বকাপ দেখছেন।

ইউওএলের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ইউরোপ ও আফ্রিকা মহাদেশের ৫৬টি করে অঞ্চলে, পুরো আমেরিকার (উত্তর, দক্ষিণ ও মধ্য) ৫০টি, এশিয়ার ৪৩টি ও ওশেনিয়ার ২০টি অঞ্চলে কাতার বিশ্বকাপের সম্প্রচারস্বত্ব বিক্রি হয়েছে।

আরও খবর পড়ুন

ইনকিলাব

Loading...
,