প্রথম সৌদি নারী অভিযাত্রী হিসেবে মহাকাশে যাচ্ছেন রায়ানা

মহাকাশে নারী অভিযাত্রী পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বাধীন সরকার। সব ঠিক থাকলে দেশটির প্রথম নারী মহাকাশচারী হতে যাচ্ছেন রায়ানা বারনাউই।

কাতারে চাকরি খুঁজছেন? এখানে ক্লিক করুন

রোববার সৌদি আরবের সরকারি বার্তাসংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) এক প্রতিবেদনে এ সম্পর্কে বলা হয়, ‘আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে অবস্থানরত (পুরুষ) মহাকাশচারী আলী আল-কারনির সহকর্মী হিসেবে রায়ানা বারনাউইকে নির্বাচিত করা হয়েছে।’

‘এর মাধ্যমে তিনি সৌদির মহাকাশ অভিযান প্রকল্প এএক্স-২ স্পেস মিশনের সঙ্গে পুরোপুরি যুক্ত হতে যাচ্ছেন।’

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল অ্যারোনেটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (নাসা) স্পেস স্টেশন থেকে থেকে রায়নাকে বহনকারী নভোযানটি উৎক্ষেপণ করা হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে এসপিএর প্রতিবেদনে।

চলতি বছরের দ্বিতীয় ভাগে শুরু হবে সৌদির এই মহাকাশ অভিযান। আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘অ্যাক্সিয়োম স্পেসের পক্ষ থেকে এটির আয়োজন করা হচ্ছে।

তাদের সাহায্য করবে সৌদির প্রতিরক্ষা মন্ত্রক, ক্রীড়া মন্ত্রক, জাতীয় উড়ান কর্তৃপক্ষ-সহ প্রশাসনের আরও বেশ কয়েকটি বিভাগ।

‘স্পেস এক্স ড্র্যাগন’ মহাকাশযানে করে মহাকাশচারীদের মহাকাশ কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে এসপিএর প্রতিবেদনে।

সেখানে সৌদির রায়ানা এবং আলি ছাড়াও থাকার কথা নাসার প্রাক্তন মহাকাশচারী পেগি হুইটসনের। এই নিয়ে চতুর্থবার মহাকাশ কেন্দ্রে পাড়ি দিতে চলেছেন তিনি।

মহাকাশযানটির চালকের দায়িত্বে থাকবেন আমেরিকার টেনেসির বাসিন্দা জন শফনার। নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে একটি ‘স্পেসএক্স ফ্যালকন ৯’ রকেটে করে তাদের যাত্রা শুরু হবে বলে জানা গেছে।

আরো পড়ুন

DhakaPost

Loading...
,