প্রবাসীর স্বামী/স্ত্রীকেও কাজের সুযোগ দিচ্ছে সৌদী

সউদী আরবে কর্মরত প্রবাসী কর্মীরা এখন থেকে তাদের স্বামী বা স্ত্রীকে দেশটিতে নিয়ে যেতে পারবেন। এর মাধ্যমে প্রবাসীদের স্বামী বা স্ত্রীরা দেশটিতে কাজের সুযোগ পাবেন।

তবে এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সউদী সরকারের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। সোমবার সউদী আরবের ইংরেজি দৈনিক সউদী গ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন

এতে বলা হয়েছে, সউদী আরবের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রীকে প্রবাসী শ্রমিকদের সঙ্গী নিয়োগ সংক্রান্ত একটি নীতিমালার অনুমোদন দিয়েছে।

সেই নীতিমালায় প্রবাসী কর্মীদের স্বামী-স্ত্রী বা রক্তের সম্পর্ক রয়েছে এমন স্বজনদের সউদীতে কাজের সুযোগের প্রস্তাব করা হয়েছে।

সউদী গ্যাজেট বলছে, প্রবাসীদের স্বামী বা স্ত্রী যারা সউদী আরবে তাদের সাথে আছেন এবং সেই সাথে প্রবাসী কর্মজীবী নারীদের মাহরামকে (ঘনিষ্ঠ রক্তের আত্মীয়) কিছু শর্তে নিয়োগের অনুমতি দেওয়া হবে।

কাতারে চাকরি খুঁজছেন? এখানে ক্লিক করুন

মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ এই দেশটির অর্থনৈতিক কার্যক্রম ও বিভিন্ন পেশার সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে নতুন এ পদেক্ষপ নেওয়া হয়েছে।

সউদীতে কর্মরত প্রবাসী শ্রমিকদের পুরুষ ও নারী সঙ্গীদের কাজের অনুমতি সংক্রান্ত নীতিমালা বাস্তবায়নের প্রভাবের বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা একটি প্রতিবেদন পরীক্ষা করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এই অনুমোদন দিয়েছে।

এজন্য বিশেষ মানদ- উঠে গেলেই কেবল সঙ্গীদের সউদী আরবে নেওয়া যাবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। তাদের নিয়োগ প্রয়োজনীয় চাকরির শূন্যপদের বিপরীতে হবে।

তবে এই নিয়োগকে সউদী আরবের নিতাকাত সউদীকরণ কর্মসূচির শর্তাবলির সাথেও সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে।এছাড়া সঙ্গী নিয়োগে পেশা বাছাই ও নিয়োগের সব শর্ত পূরণ হচ্ছে কি না তা বিবেচনা করবেন নিয়োগকর্তা।

এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সউদী সরকারের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী, পেশার নির্ধারিত যোগ্যতা বিবেচনার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

তবে সউদী আরবের পুরুষ ও নারীদের জন্য সংরক্ষিত চাকরিতে সঙ্গী নিয়োগের অনুমতি নেই বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

আরো পড়ুন

Inqilab

Loading...
,