কাতারে নিষেধাজ্ঞার কারণে বেচে যাওয়া বিয়ার পাবে চ্যাম্পিয়ন দল

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলকে ঘিরে অনেক ইস্যুর মধ্যে একটি হলো অ্যালকোহল। প্রথমদিকে মদ্যপায়ীদের জন্য স্টেডিয়ামের নির্দিষ্ট অংশে অ্যালকোহলের ব্যবস্থা থাকার কথা বলা হলেও শেষ পর্যন্ত আয়োজকরা ইউ-টার্ন নিয়েছেন।

গত শুক্রবার এমন সিদ্ধান্তের পর রাজধানী দোহার চারিদিকে ছড়িয়ে থাকা অস্থায়ী দোকানগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই কারণে প্রচুর পরিমাণ বিয়ার জমা থেকে যাবে ওয়্যারহাউজে।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে এখানে ক্লিক করুন

সেগুলো কিভাবে কাজে লাগানো যায়, সেই উপায় খুঁজে বের করেছে বাডভাইজার। তারা ঘোষণা দিয়েছে, এবারের বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নদের বেচে যাওয়া বিয়ার দিয়ে দেওয়া হবে।

১৯৮৬ সালের আসর থেকে বিশ্বকাপের স্পন্সর হিসেবে রয়েছে বাডভাইজার। এবারের বিশ্বকাপের জন্য ফিফার সঙ্গে তাদের চুক্তি হয়েছে ৭৫ মিলিয়ন ডলারের।

স্টেডিয়াম এলাকায় বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা থাকায় বাডভাইজারের উৎপাদিত পণ্যের বড় একটি অংশ থেকে যাবে অব্যবহৃত। অথচ গত বছর দ্বিতীয় সর্বাধিক বিক্রি হওয়া বিয়ার ছিল বাডভাইজারের।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে এখানে ক্লিক করুন

বিশ্বকাপে বিক্রির জন্য কাতারে বিপুল পরিমাণ বিয়ার এনে জড়ো করেছিল ওই প্রতিষ্ঠান। এখন ওই বিয়ার অন্যভাবে ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিয়ার প্রস্তুতকারী সংস্থাটি।

বিক্রি করতে না পারায় বড় অঙ্কের ক্ষতি হয়েছে ফিফার অন্যতম স্পন্সর বাডভাইজারের। এ ক্ষতির ভার ফিফাকেও বইতে হবে!

শুরুতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, কাতারে মদ্যপায়ীদের জন্য স্টেডিয়ামের নির্দিষ্ট অংশে অ্যালকোহলের (মদ ও বিয়ার) ব্যবস্থা থাকবে।

কিন্তু আসর শুরু হওয়ার দুইদিন আগে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে আয়োজকরা। বিশ্বকাপের আটটি ভেন্যুর একটিতেও বিক্রি করা হবে না বিশেষ এই পানীয়। শুধুমাত্র ফ্যান জোনের মধ্যে সীমাবদ্ধ এলাকায় ১৫ইউরো মূল্যের সর্বোচ্চ চারটি পাইন্ট কিনতে পারবেন দর্শকরা।

স্বাগতিক কাতারের এমন সিদ্ধান্তের পরই বাডভাইজারের পক্ষ থেকে ঘোষণা আসে যারা বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হবে, তাদের দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে কাতারে আনা হাজার হাজার ক্যান বিয়ার।

যেন বিশ্বকাপজয়ী দেশটির সমর্থকদের উদযাপনে কমতি না থাকে। টুইটারে বাডভাইজার নিজেদের নতুন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে, নতুন দিন। নতুন টুইট। বিজয়ী দল পাবে ‘বাডস’ (বাডভাইজার)। কোন দল হবে এটা?

আরও খবর পড়ুন

বাংলা ট্রিবিউন

Loading...
,