‘মালয়েশিয়ার সঙ্গে চুক্তির পরও মানুষ যাচ্ছে না’

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার প্রসঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, চুক্তি করলাম, তারপরও তো মানুষ যাচ্ছে না।

মানুষ যাচ্ছে না, কারণ অন্য দিক থেকে যদি কোনও সমস্যা থাকে সেটা আমরা দেখবো। কিন্তু মালয়েশিয়াতে বিভিন্ন ধরনের কর্মী দরকার আছে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড কর্তৃক প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তির চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বাংলাদেশ অংশে খোলা রয়েছে জানিয়ে ইমরান আহমদ বলেন,  মালয়েশিয়া অংশে যদি কোনও সমস্যা থাকে সেটি আমরা দেখবো।

তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশে আমাদের কর্মীর চাহিদা রয়েছে। আমরা দক্ষ কর্মীতে গুরুত্ব দিচ্ছি। ভাষার দক্ষতার ওপর জোর দিচ্ছি। আশা করছি, এসব বিষয়ে যদি আমরা ভালো অবস্থান তৈরি করতে পারি, আমাদের রেমিট্যান্স বাড়বে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে নার্সের চাহিদা রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, দুবাইয়ে নার্স দরকার। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেই অর্থে আমাদের অত নার্স নেই।

ইমরান আহমদ বলেন, সরকার সবসময় প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণে নিয়োজিত আছে। প্রবাসী কর্মীর সন্তানরা যাতে ভালোভাবে পড়াশুনা করতে পারে এবং উচ্চশিক্ষা লাভে কোনও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয় সেজন্য এই শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে।

 মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। এতে আরও বক্তব্য রাখেন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের  মহাপরিচালক হামিদুর রহমান।

অনুষ্ঠানের শেষে অতিথিরা প্রবাসীদের দশজন মেধাবী সন্তানের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন। উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে মোট ১৬২ জনকে বৃত্তির চেক দেওয়া হয়।

গালফ বাংলার হোয়াটসঅ্যাপে এড হোন এখানে ক্লিক করে

কাতারের আরও খবর

বাংলা ট্রিবিউন

Loading...
,