শারীরিক যেসব সমস্যা চিকিৎসকের কাছে গোপন করবেন না

সুস্থ থাকার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নেই। কারণ আমাদের শরীরের জন্য কখন কী প্রয়োজন সেই তথ্য তারাই সঠিকভাবে দিতে পারেন। তারা সহয়তা করেন বলেই আমরা সুস্থ ও নিশ্চিন্ত জীবনযাপন করতে পারি।

আমাদের সুস্থতার জন্য তারা দিন-রাত পরিশ্রম করে যান। চলমান মহামারি মোকাবিলায় চিকিৎসকেরাই হলেন সম্মুখ সারির যোদ্ধা। আমাদের মধ্যে কেউ কেউ হয়তো এমন আছেন, যারা চিকিৎসকের কাছে গিয়ে সমস্যার কথা খুলে বলেন না।

আপনি যদি আপনার সমস্যার কথা খুলে না বলেন, তাহলে চিকিৎসকের পক্ষে সাহায্য করা মুশকিল হয়ে যাবে। কারণ আপনার শারীরির পরিস্থিতি আপনিই সবচেয়ে ভালো অনুভব করতে পারবেন। এমন কিছু সমস্যা রয়েছে যেগুলো চিকিৎসকের কাছে কখনোই গোপন করা উচিত নয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

পেট ব্যথা ও ফোলা ভাব

আপনার পেটে ব্যাথা হতে থাকলে কিংবা পেট ফুলে গেলে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। কারণ, পেট ফুলে যাওয়া কেবল খাবারের সমস্যার কারণে নয়, বরং আরও অনেক মারাত্মক কারণে হতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে গ্যাস্ট্রিক, অ্যালার্জি, আলসারের মতো রোগ। পেট ব্যথার সঙ্গে সঙ্গে বমি, ডায়রিয়া, ওজন কমে যাওয়ার মতো সমস্যা থাকলে সেকথাও চিকিৎসককে জানানো উচিত। 

হঠাৎ শ্রবণশক্তি কমে যাওয়া

হঠাৎ শ্রবণশক্তি কমে যাওয়া কোনো সাধারণ সমস্যা নয়। অনেকে মনে করেন ঠান্ডা লেগে বা কানে ময়লা জমে এই সমস্যা হয়েছে, কিন্তু সমস্যা হতে পারে আরও গভীর। অডিটরি নার্ভে টিউমার বা মাল্টিপল স্ক্লেরোসিসের লক্ষণও হতে পারে এই হঠাৎ কানে কম শোনা। তাই এই সমস্যা অবহেলা করবেন না, চিকিৎসককে সবটা জানান।

প্রচণ্ড মাথা ব্যথা

মাথা ব্যথাকে এখন সবাই সাধারণ সমস্যা হিসেবেই ধরে নিয়েছেন; আলাদা করে আর পাত্তা দিতে চান না। কিন্তু যদি আপনি প্রায়ই মাথা ব্যথায় ভুগে থাকেন তবে এখনই সতর্ক হওয়া উচিত। যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কারণ সাধারণ ভেবে যে মাথা ব্যথাকে অবহেলান করছেন, সেই মাথা ব্যথাই হতে পারে পরবর্তীতে স্ট্রোক, ব্রেন টিউমারের মতো মারাত্মক সমস্যার কারণ। তাই মাথা ব্যথা হলে চিকিৎসকের কাছে তা গোপন করবেন না। 

প্রস্রাবের সমস্যা হলে

পানি কম খেলেই যে কেবল প্রস্রাবে সমস্যা হয়, তা কিন্তু নয়। সাধারণ মনে হলেও এই সমস্যা হতে পারে বড় কোনো অসুখের লক্ষণ। হার্নিয়া বা টিউমার, স্নায়ু বা কিডনির সমস্যার ফলেও দেখা দেয় প্রস্রাবের সমস্যা। তাই প্রস্রাবের সমস্যা দেখা দিলে প্রচুর পানি পান করতে থাকুন। সেইসঙ্গে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। কোনোভাবেই চিকিৎসকের কাছে বিষয়টি গোপন রাখবেন না।

ব্যাক পেইন

ব্যাক পেইন এখন অনেকেরই সঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। ব্যাক হলে আমরা অনেকেই মনে করি এটি হয়তো শোওয়া-বসার কোনো সমস্যা থেকে হয়েছে। তবে সবক্ষেত্রে এমন ভাবা ঠিক নয়। এটি শারীরিক কোনো গুরুতর সমস্যার কারণে হতে পারে। তাই অসুখ সঠিকভাবে নির্ণয়ের জন্য চিকিৎসকের কাছে সমস্যা খুলে বলুন।

মাথা ঘোরা

মাথা ঘোরানোর মতো সমস্যা হলে তাকে আমরা শারীরিক দুর্বলতা ভেবে নিই। অনেক সময় রোদে চলাফেরার কারণেও এই সমস্যা হয়। তবে মাথা ঘোরার কারণ হতে পারে আরও মারাত্মক। স্ট্রোক সিন্ড্রোমের মতো কারণেও হতে পারে মাথা ঘোরার সমস্যা। তাই মাথা ঘোরার সমস্যা হলে চিকিৎসকের কাছে বিষয়টি এড়িয়ে যাবেন না। 

দৃষ্টিশক্তি কমে গেলে

দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার সমস্যাকে অবহেলা করবেন না। এটি হতে পারে স্ট্রোকের প্রাথমিক লক্ষণগুলোর মধ্যে একটি। তাই চোখে সমস্যা দেখা দিলে বা দৃষ্টিশক্তি কমে গেলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

,