শাহ আমানত বিমানবন্দরে ১০ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার

দুবাই-চট্টগ্রাম-ঢাকাগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজের আসনের নিচ থেকে ১০ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়েছে, যার মূল্য প্রায় ৭ কোটি টাকা।

শনিবার সকালে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়, এদিন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর শনিবার বিমানবন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে সতর্কতামূলক অবস্থান গ্রহণ করে।

সকাল ৮টা ৩৫ মিনিটে দুবাই থেকে আসা বিমানের বিজি-১৪৮ ফ্লাইট বিমানবন্দরে অবতরণ করলে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত এয়ারপোর্ট সার্কেলের কর্মকর্তারা বিশেষ তল্লাশির জন্য প্রবেশ করেন।

এ সময় উড়োজাহাজের ১৭বি নম্বর সিটের নিচে অভিনব উপায়ে লুকানো অবস্থায় কালো স্কচটেপে মোড়ানো  চারটি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়।

প্যাকেটগুলো বিমানবন্দরে কর্মরত বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধির উপস্থিতিতে খোলা হয়। খোলার পর ৮৬ পিস স্বর্ণবার পাওয়া যায়, যার মোট ওজন ৯ হাজার ৯৭৬ গ্রাম এবং আনুমানিক বাজার মূল্য ৬ কোটি ৯৮ লাখ ৩২ হাজার টাকা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় সুকৌশলে লুকানো স্বর্ণবারগুলো অবৈধভাবে সরকারি শুল্ককর ফাঁকি দিয়ে চোরাচালানের উদ্দেশ্যে দেশে আনা হয়েছে, যা পরবর্তীতে যেকোনো পথে বিমানবন্দরের বাইরে পাচারের আশঙ্কা ছিল।

জব্দ স্বর্ণবারগুলো চট্টগ্রামের কাস্টম হাউসের মূল্যবান শুল্ক গুদামে জমা দেওয়া হবে।

এ ছাড়া আটকের বিষয়ে দ্য কাস্টমস অ্যাক্ট, ১৯৬৯ অনুযায়ী বিভাগীয় মামলা এবং একটি ফৌজদারি মামলা দায়েরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে এখন পর্যন্ত কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর সাড়ে ১১১ কেজি স্বর্ণ আটক করেছে, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৭৮ কোটি টাকা।

এর আগে ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ১৭৪.৪৯ কেজি এবং ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে ১৮০.৩৫ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার হয়।

Loading...
,