সিলেটে হঠাৎ বেড়েছে “বিদেশিদের” অনুপ্রবেশ!

সিলেটে হঠাৎ করে বেড়েছে বিদেশি নাগরিকদের অনুপ্রবেশ। গত ১০ দিনে বিদেশি ১০ জন নাগরিককে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

সিলেটে হঠাৎ করে বিদেশি নাগরিকদের আনাগোনা বেড়ে যাওয়ায় শঙ্কায় রয়েছে সচেতন মহল। এদের মাধ্যমে মাদকদ্রব্য ও চোরাই পণ্যে সিলেট সয়লাব হওয়ার আশঙ্কা করছেন সিলেটের সচেতন ব্যক্তিবর্গ।

জানা গেছে, গত ৫ নভেম্বর সিলেট নগরীর আম্বরখানা থেকে দুই নেপালি নাগরিককে আটক করে পুলিশ। ওই দিন রাত ৮টার দিকে ঘুরাফেরার সময় তাদেরকে আটক করা হয়।

স্থানীয় লোকজন জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ এসে তাদেরকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন- নেপালের ভোজপুর জেলার আমচক ৪নং ওয়ার্ডের জয় বাহাদুর কামি (৪৮) ও তার ছেলে শান বাহাদুর (১০)।

জিজ্ঞাসাবাদকালে তারা পুলিশকে জানায়, কাজের সন্ধানে ভারতীয় নাগরিকের সহায়তায় সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর থানার বড়ছড়া সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে গত ৩ নভেম্বর তারা বাংলাদেশে প্রবেশ করেন।

পরে সিলেটের তামাবিল সীমান্ত দিয়ে ভারতের গোয়াহাটিতে তাদের ফেরার কথা ছিল। এ উদ্দেশ্যেই তারা সিলেটে আসেন। কিন্তু এর আগেই তারা পুলিশের হাতে আটক হন।

গত ১১ নভেম্বর জৈন্তাপুর থানাপুলিশের একটি টহল টিম রাত দেড়টায় ডিউটিরত অবস্থায় একজন ভারতীয় নাগরিক জৈন্তাপুর থানাধীন ফতেপুর ইউনিয়নের হরিপুর বাজার এলাকায় ঘোরাফেরা করতে দেখে।

বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করলে তার নির্দেশে রাত ২টায় সেই ভারতীয় নাগরিককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে টহল পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে ওই বিদেশি জানান, তার নাম আলিম উদ্দিন (৪৫)। তিনি ভারতের আসাম প্রদেশের নগাও জেলার মুরাজার মহকুমা হুজাই থানার বরআউট (ট্রার্নিং) গ্রামের ইলিয়াছ আলীর ছেলে।

তবে তিনি এসময় পুলিশকে বাংলাদেশ ভ্রমণের ভিসা সংবলিত পাসপোর্ট বা অন্য কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। শুধু  ভারতীয় নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ইস্যুকৃত ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি প্রদর্শন করেন।

পরে পুলিশ আলিম উদ্দিনকে জিজ্ঞাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। থানায় গিয়ে তিনি জানান, ভারতের ডাউকি সীমান্ত অতিক্রম করে গোয়াইনঘাট উপজেলার নলজুরী সীমান্ত দিয়ে তিনি বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন।

সর্বশেষ মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) সিলেটের সীমান্ত এলাকা থেকে বিজিবি অভিযান চালিয়ে ৫ নারীসহ ৭ ভারতীয় নাগরিককে আটক করেছে।

বিজিবি ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, জৈন্তাপুর উপজেলার শ্রীপুর আসামপাড়া এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৫ নারীসহ ৭ ভারতীয় নাগরিককে আটক করে বিজিবি-৪৮ এর শ্রীপুর কোম্পানী কমান্ডার।

শ্রীপুর কোম্পানী কমান্ডার মো. ইব্রাহিম আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সন্দেহজনকভাবে ৭ নাগরিক আটক করা হয়েছে। তারমধ্যে ৫ জন নারী ও ২ জন পুরুষ।

তারা বাংলাদেশের শ্রীমঙ্গলের বাসিন্দা বলে দাবি করলেও তথ্য যাচাই করার জন্য শ্রীমঙ্গল বিজিবির সহায়তা চাওয়া হয়েছে। প্রকৃত অর্থে তারা বাংলাদেশের নাগরিক হলে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হবে অন্যতায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়।

,