হজে যেতে পারছেন না ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরা

হ‌জে যাওয়ার জন্য আগে নিবন্ধন করা থাকলেও যা‌দের বয়স ৬৫ পার হ‌য়ে‌ছে তারা এ বছর হ‌জে যে‌তে পার‌বেন না। এমনটি জানিয়েছেন ধর্ম প্র‌তিমন্ত্রী ফ‌রিদুল হক খান।

সোমবার সচিবালয়ে বাংলদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম আয়োজিত ইসলামিক অর্থ ব্যবস্থাপনায় নগ‌দের ডিজিটাল লেনদেন নি‌য়ে এক সভা শে‌ষে সাংবা‌দিক‌দের প্র‌শ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তি‌নি।

হজে যেতে যারা আগে নিবন্ধন করেছেন কিন্তু বয়স ৬৫ বছরের বেশি, তারা কী এবার হজে যেতে পারবেন- এ প্র‌শ্নে ধর্ম প্র‌তিমন্ত্রী ব‌লেন, ‘না, তারা যেতে পারবেন না।

ইন্টারন্যাশনালি সারা বিশ্ব একই সিস্টেমে চলছে। ৬৫ বছরের বেশি যাদের বয়স হয়েছে, তারা এবার হ‌জে যেতে পারবেন না। আগে নিবন্ধন করলেও না।’

প্র‌তি বছর সাধারণত ২০ থেকে ২৫ লাখ মানুষ হজ পালনের অনুমতি পান। কিন্তু ক‌রোনা মহামা‌রির ম‌ধ্যে সৌদি সরকার এবার বি‌শ্বের ১০ লাখ মানুষ‌কে হ‌জে যাওয়ার অনুম‌তি দে‌বে।

ফ‌লে বাংলাদেশ থে‌কে এ বছর সাড়ে ৫৭ হাজার মানুষ হ‌জে যে‌তে পার‌বেন। যদিও বাংলাদেশ থে‌কে হ‌জে যে‌তে আড়াই লাখেরও বেশি মানুষ নিবন্ধন ও প্রাক-নিবন্ধন ক‌রে‌ছেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বিগত দুটি বছর পবিত্র হজ পালন করা সম্ভব হয়নি। আল্লাহর অশেষ রহমতে এ বছর আমরা হজ পালন করতে যাচ্ছি। সৌদি আরবের সঙ্গে যে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি সেটাও হয়ে যাবে।’

তিনি জানান, অন্যান্য বছর হজের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ৪ থেকে ৬ মাস সময় পাওয়া যায়। এবার সময় মাত্র ৩৪ দিন।

৩৪ দিনের এই কর্মযজ্ঞে আল্লাহ তায়ালা যদি পরিত্রাণ দেয়ার ব্যবস্থা করেন, এ ছাড়া করার কোনো উপায় নেই। আমরা শুক্র ও শনিবারও অফিস খোলা রাখার কাজ শুরু করেছি।

এই সময় তিনি ইসলামিক ব্যাংকের নগদের সম্পৃক্ততা উল্লেখ করে বলেন, ২০১৯ সালের ২৬ মার্চ প্রধানমন্ত্রী নগদের উদ্বোধন করার সময় থেকেই নগদ এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সুদবিহীন লেনদেনের সুবিধা দিয়ে আসছে, যা দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের জন্য ইসলামিক জীবন বিধান মেনে ডিজিটাল লেনদেন করতে সহায়তা করছে।

সুদবিহীন লেনদেন ছাড়াও গ্রাহকরা বিভিন্ন ইসলামিক ইস্যুরেন্সের প্রিমিয়াম প্রদান, বিভিন্ন ইসলামিক প্রতিষ্ঠানে সহজে দান করা, হজ ও ওমরাহ সংক্রান্ত সব পেমেন্টসহ অন্যান্য সুবিধা খুব সহজে উপভোগ করতে পারবেন।

প্রতিমন্ত্রী জানান, নগদ ইসলামিক অ্যাপ থেকে জাকাত ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে জাকাতের হিসাব খুব সহজে করা যায়। এতে আরও আছে সম্পূর্ণ কোরআন শোনার ব্যবস্থা, নামাজের সময়সূচি ও বিভিন্ন হাদিস ও দোয়ার সংকলন।

গ্রাহকের লেনদেন থেকে নগদ ইসলামিকের আয়ের একটি অংশ মসজিদ ও মাদ্রাসার উন্নয়নকাজে দান করা হচ্ছে।

নগদ-এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ আমিনুল হক বলেন, ‘আমাদের দেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ। তারা ইসলামিক অর্থ ব্যবস্থাপনায় বেশি সম্পৃক্ত।

এই সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষকে ডিজিটাল লেনদেনের সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে নগদে এখন ইসলামিক অর্থ ব্যবস্থাপনাও যুক্ত হয়েছে।

এর মাধ্যমে যে কেউ যেকোনো জায়গা থেকে জাকাত-ফিতরাসহ যেকোনো ধরনের ইসলামিক ব্যাংকিং সুদবিহীন পরিচালনা করতে পারেন। যে কারো অনুকূলে টাকাও পাঠাতে পারবেন।’

অনুষ্ঠানে শরিয়া সুপারভাইজরি কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এইচ এম শহিদুল ইসলাম বারাকাতী বলেন, ‘ঘরে বসে জাকাত ফিতরার টাকা এখন সহজেই নগদ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে পৌঁছে দেয়া সম্ভব হচ্ছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে নগদ। নগদের ইসলামী অ্যাপস এই কাজটি করছে। তিনি জানান, নগদে হারাম কিছু নেই। আছে হালাল ব্যবস্থা।’

বিএসআরএম সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সম্পাদক মাসুদুল হক। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ইমাম প্রশিক্ষণ অ্যাকাডেমির পরিচালক মো. আনিসুজ্জামান সিকদার।

গালফ বাংলার হোয়াটসঅ্যাপে এড হোন এখানে ক্লিক করে

আজকের আরও খবর

নিউজবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকম

Loading...
,