৩,০০০ মিশরীয়কে ফেরত পাঠাল কুয়েত!

কুয়েতে সবচেয়ে বেশি কর্মী মিশর থেকে আসা। আল-কুদস জানিয়েছে, মিশরীয়রা কুয়েতের বৃহত্তম প্রবাসী গোষ্ঠী। বিদেশি কর্মীদের ২৪ শতাংশ তারাই।

এ কারণে কুয়েতে মিশরীয় শ্রমিকদের একক আধিপত্য রয়েছে। তারা বিভিন্ন সময় নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডেও জড়িয়ে পড়ে।

কাতারের সব খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেতে এখানে ক্লিক করুন

কুয়েতের দৈনিক আল-রাই অনুসারে, ২০২২ সালে ৩,০০০ মিশরীয়কে বিতাড়িত করা হয়েছে।

কুয়েত সরকার শ্রমবাজার কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে। দেশটির সকল সেক্টরে প্রবাসীদের সংখ্যা কমিয়ে নিয়ে আসাই এর লক্ষ্য।

যদিও ২০১৮ সালে কুয়েতের সিভিল সার্ভিস কমিশন পরবর্তী পাঁচ বছরে কুয়েতের সরকারি চাকরিতে প্রবাসীরাও অংশ নিতে পারবে বলে ডিক্রি জারি করেছিল।

কাতারে চাকরি খুঁজছেন? এখানে ক্লিক করুন

কর্তৃপক্ষ বিদেশি কর্মীদের সংখ্যা কমানোর লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছে। ২০২০ সালে কুয়েতের সংসদ জানায়, তারা মিশরীয়দের সংখ্যা দশ শতাংশে কমিয়ে আনতে চায় এবং এ ব্যাপারে একটি খসড়া আইনও প্রবর্তন করেছে।

এই বছরের ডিসেম্বরে কুয়েত সরকার উপসাগরীয় দেশগুলোতে ভ্রমণ করতে ইচ্ছুক মিশরীয় শ্রমিকদের ওপর নতুন করে শর্ত আরোপ করেছে। যার মধ্যে রয়েছে ১০০ ডলার এন্ট্রি ফি, বর্ধিত ওয়ার্ক পারমিট ডকুমেন্টেশন ফি এবং মেডিকেল পরীক্ষা।

আরও খবর পড়ুন

গালফ বাংলা

Loading...
,