বৃহঃস্পতিবার ৪ঠা জুন ২০২০ |

মানুষের পাশে অধরা খান

 মঙ্গলবার ৩১শে মার্চ ২০২০ রাত ১০:৫৯:৩৩
মানুষের

করোনা ভাইরাসে যখন বাংলাদেশের খেটে খাওয়া মানুষেরা দুশ্চিন্তায়, তখন ঢাকাসহ সারাদেশেই স্বেচ্ছাসেবা দিতে এগিয়ে এসেছেন ব্যক্তি, সংগঠন, সংস্থাসহ অনেকেই। এই স্বেচ্ছাসেবায় পিছিয়ে থাকলেন না বাংলাদেশের আলোচিত নায়িকা অধরা খানও। নিজের পরিচিতি গোপন করে বন্ধু-বান্ধব আর ছোট কাজিনদের সঙ্গে নিয়ে নেমে পড়লেন খাবার বিতরণে। খবরটি তিনি নিজে গোপন রেখেছিলেন, কিন্তু নায়িকা বলে কথা। ঢাকার সংবাদমাধ্যমগুলো অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেছে তার গোপন অনুদানের খবর।

করোনাভাইরাসের এই বিশেষ সময়ে অধরা খান স্বাস্থবিধি মেনেই ঘুরে-ঘুরে খাবার দিলেন। কাউকে লাইন ধরিয়েও নয়, একেবারে নিজে পৌঁছে দিয়েছেন ঘরে-ঘরে।

ঢাকার সিনেমার আরও অনেকেই শ্রমজীবী খেটে খাওয়া মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এরইমধ্যে। এই তালিকাও দিনে-দিনে বড় হচ্ছে। পপি, অপু বিশ্বাস, তানহা তাসনিয়া ইসলাম, অনন্ত জলিল, মিষ্টি জান্নাত সাইমন সাদিক, বিপাশা কবির, জয় চৌধুরীসহ আরও অনেকেই রয়েছেন কঠিন এই সময়ে।

অধরা খান রাজধানী ঢাকার দক্ষিণ বনশ্রী এলাকার নন্দীগ্রামে ১০০ দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন। আগামী সপ্তাহে আরও মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিতে চান তিনি, এমন প্রত্যয় তার কণ্ঠে।

অধরা খান ঢাকার সংবাদপত্র দেশরূপান্তরকে বলেছেন, ‘আমি আমার সামর্থ্য অনুযায়ী কিছু মানুষকে সহায়তা করেছি। আমি তো আর অত বড় তারকা নই, অত বেশি টাকাও নেই আমার। ফলে অল্প সাধ্যে অল্প কিছু মানুষকে সহায়তা করেছি। চাল, ডালসহ কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছি।’

২০১৮ সালের শেষ দিকে চিত্রনায়ক বাপ্পির বিপরীতে ‘নায়ক’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন অধরা খান। একই বছর তার অভিনীত ‘মাতাল’ সিনেমাটিও মুক্তি পায়। কাজ চলছে অপূর্ব-রানা পরিচালিত ‘উন্মাদ’ সিনেমার। এতে তার বিপরীতে রোশান ও কলকাতার এক জনপ্রিয় নায়ককে দেখা যাবে।

অধরা জানান, তার সঙ্গে খাদ্য বিতরণে ছিলেন তার বোন ও নাট্য পরিচালক সাজ্জাদ খান। আগামী সপ্তাহেও একই রকম আরও একটি কার্যক্রম করা হবে বলে জানান তিনি।

ঢাকার আরেকটি অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে অধরা বলেন, ‘এখানে আসলে পরিচয়টা মুখ্য নয়। আমরা এ সময়ে গরিব মানুষের জন্য কিছু খাবার উপহার হিসেবে তুলে দিতে চেয়েছি। প্রথমে আমরা যাওয়ায় দেখলাম অনেক ভিড় হচ্ছে। তাই পরিকল্পনা বদল করে কিছু বাড়ি টার্গেট করে সেখানে হাজির হচ্ছি। এতে ভিড়ও এড়ানো যাচ্ছে। আবার সাধারণ মানুষের পাশেও দাঁড়ানো যাচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সবার উচিত এই সময় মানুষের জন্য কাজ করা। আমি যে এলাকায় উপহার সামগ্রী দিয়েছি সেখানকার মানুষরা খুবই গরিব। এমন মানুষদের পাশে দাঁড়ানো দরকার।’

অধরা জানান, করোনাভাইরাসের কারণে সিনেমার কাজও বন্ধ আছে। নতুন দুটি ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

তার ভাষ্য, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তিনি শুরু করবেন অপূর্ব-রানার ‘উন্মাদ’ ছবির দ্বিতীয় লটের কাজ। এতে তার বিপরীতে আছেন চিত্রনায়ক রোশান।

অধরা খানের এই সহযোগিতার খবরে অভিনন্দনে ভরে দিচ্ছেন তার দর্শক ভক্ত-অনুরক্তরা। প্রিয় নায়িকার এই পরিচয়গোপন অনুদানে অনুপ্রেরণা পাচ্ছেন তারাও।


ছবি: অধরা খানের ফেসবুক থেকে নেওয়া হয়েছে।

গালফবাংলায় প্রকাশিত যে কোনো খবর কপি করা অনৈতিক কাজ। এটি করা থেকে বিরত থাকুন। গালফবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।
খবর বা বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: editorgulfbangla@gmail.com

সংশ্লিষ্ট খবর