শনিবার ৩০শে মে ২০২০ |

একদিনে ১৩ প্রবাসী বাংলাদেশির মৃতদেহ পৌঁছেছে বাংলাদেশে

 বৃহঃস্পতিবার ১৪ই মে ২০২০ দুপুর ১২:১৭:৪৯
একদিনে


সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির বিভিন্ন মর্গে থাকা ১৩ প্রবাসী বাংলাদেশির মৃতদেহ দেশে পাঠাল আবুধাবিতে বাংলাদেশ দূতাবাস।

বুধবার ইত্তেহাদ এয়ারলাইন্সের বিশেষ কার্গো ফ্লাইট ইওয়াই ৯২১ -এ করে মৃতদেহগুলো দেশে পাঠানো হয়।

বিশেষ কার্গো ফ্লাইটটি স্থানীয় সময় বিকেল ৪টা ২মিনিটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। দেশে ফেরা এসব মৃতদেহ কভিড-১৯ এ আক্রান্ত নয়। তবে তারা হৃদরোগসহ অন্যান্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন; যাদের অধিকাংশের বাড়ি চট্টগ্রামে।

আরব আমিরাত থেকে ১৩ প্রবাসীর মৃতদেহ ঢাকায় পৌঁছার কথা নিশ্চিত করেছেন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের (কার্গো শাখা) কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান।

আবুধাবি দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর মুহাম্মদ আবদুল আলিম মিয়া সমকালকে জানান, বিমান পরিসেবা বন্ধ থাকায় বাংলাদেশি মৃতদেহ দেশে ফেরত পাঠানো সম্ভব না হওয়ায় কিছু মৃতদেহ স্থানীয় হাসপাতালের মর্গে রক্ষিত ছিল। বুধবার আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইত্তেহাদ ইওয়াই ৯২১ ফ্লাইটে ১৩টি মৃতদেহ দেশে পাঠানো হয়। ফ্লাইটটি সকাল ৯ টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা উদ্দেশে রওনা করে।

তিনি আরো বলেন, স্বাভাবিক অবস্থায় একটি মৃতদেহ পাঠাতে তিন হাজার দিরহামের মতো খরচ হলেও বর্তমানে একেকটি মৃতদেহ পাঠাতে এর দ্বিগুণ খরচ হচ্ছে। কার্গোর হিসেবে প্রতি কেজিতে ৩৫ দিরহাম করে দিতে হচ্ছে। তার উপর একেকটি লাশের পেছনে সময় দিতে হচ্ছে আট-দশ দিন করে। বিভিন্ন দপ্তরের সঙ্গে সমন্বয় করে এবং কার্গো ফ্লাইটগুলোকে অনেকেটা চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে এই লাশ দেশে পাঠানো হচ্ছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে আরো দুই-তিনটি মৃতদেহ দেশে পাঠানো হবে।

আরও কিছু খবর

কাতারে নতুন নিয়ম: মাস্ক ছাড়া বাইরে বের হলে সর্বোচ্চ দু লাখ রিয়াল জরিমানা হতে পারে

কাতারে বাড়ছে কর্মহীন প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংখ্যা

কাতার প্রবাসীদের জন্য ৩৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দিল বাংলাদেশ সরকার

ডকুমেন্ট ছাড়া সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকায়ও বোনাস পাবেন প্রবাসীরা

গালফবাংলায় প্রকাশিত যে কোনো খবর কপি করা অনৈতিক কাজ। এটি করা থেকে বিরত থাকুন। গালফবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।
খবর বা বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: editorgulfbangla@gmail.com

সংশ্লিষ্ট খবর