বুধবার ৮ই জুলাই ২০২০ |

দেশে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন লাখো অভিবাসী শ্রমিক

 শুক্রবার ২৬শে জুন ২০২০ রাত ০৯:৪০:১৫
দেশে

নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর ফলে দেশে ফিরতে বাধ্য হয়েছে লাখ লাখ অভিবাসী শ্রমিক। কিন্তু দেশে এসে বেকারত্ব ও দারিদ্র্যের সামনে এসে দাঁড়িয়েছে তারা। অবিলম্বে এ শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা জালের আওতাভুক্ত করার জন্য সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ শ্রম সংস্থা। খবর রয়টার্স।

বিদেশফেরত শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিতে যুক্ত করা এবং দেশের শ্রমবাজারে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার জন্য বুধবার এক প্রতিবেদনে সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান রেখেছে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও)।

সংস্থাটির বিভাগীয় পরিচালক ম্যানুয়েলা তোমেই এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, চলমান এ বৈশ্বিক মহামারীর মধ্যে অভিবাসী শ্রমিকদের এ সমস্যা আরেকটি বড় সংকট হিসেবে দেখা দিতে পারে।

আইএলওর মতে, বিশ্বব্যাপী ১৬ কোটি ৪০ লাখ অভিবাসী শ্রমিক রয়েছেন, যাদের অর্ধেকই নারী এবং তারা বৈশ্বিক শ্রমশক্তির প্রায় ৪ দশমিক ৭ শতাংশের প্রতিনিধিত্ব করেন। তাদের বেশির ভাগই স্বাস্থ্যসেবা, পরিবহন, গৃহস্থালি কাজ ও কৃষিতে নিযুক্ত থাকেন। তাদের পাঠানো রেমিট্যান্স তাদের পরিবার ও দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনের বরাতে তোমেই বলেন, চলতি বছরের শেষ নাগাদ রেমিট্যান্সের পরিমাণ ১০ হাজার কোটি ডলার কমবে।

আইএলওর শ্রমিক অভিবাসনবিষয়ক প্রধান মিশেল লেইটন জানান, শুধু দক্ষিণ এশিয়াতেই প্রায় ১০ লাখ অভিবাসী শ্রমিক দেশে ফেরত এসেছেন।

অন্যান্য খবর

গালফবাংলায় প্রকাশিত যে কোনো খবর কপি করা অনৈতিক কাজ। এটি করা থেকে বিরত থাকুন। গালফবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।
খবর বা বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: editorgulfbangla@gmail.com

সংশ্লিষ্ট খবর