শনিবার ৩১শে অক্টোবর ২০২০ |

বিমানকে ফ্লাইট না দেয়ায় সাউদিয়ার ফ্লাইট অনুমতি বাতিল

 রবিবার ২০শে সেপ্টেম্বর ২০২০ বিকাল ০৩:৪২:২২
বিমানকে

রাস্ট্রীয় ক্যারিয়ার বাংলাদেশ বিমানকে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি না দেয়ায় সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি বাতিল করেছে ঢাকা। রোববার সকালে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রনালয়, পররাস্ট্র মন্ত্রনালয় এবং প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের এক যৌথ ভার্চুয়াল সভা শেষে বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রনালয় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বেবিচকের মেম্বার (ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড এন্ড রেগুলেটরি কমিশন ) চৌধুরী জিয়া উল কবির ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি বাতিলের এই সিদ্ধান্ত নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ৩ মন্ত্রনালয়ের যৌথ সভা শেষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জানাগেছে ১ অক্টোবর থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। এরই মধ্যে যদি সৌদিয়া এয়ারলাইন্স টিকিট বিক্রি করে থাকে তাহলে আগামী সপ্তাহের মধ্যে তারা ওই যাত্রী নিয়ে যাবার সময় পাবে। এই জন্য তারা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ২-৩টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বলে জানা গেছে। সে অনুযায়ী আগামী ২২ সেপ্টেম্বর সাউদিয়া ঢাকা থেকে একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বলে নিশ্চিত করেছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার বেসামরিক বিমান চলাচল কতৃপক্ষ (বেবিচক) সৌদিয়া এয়ারলাইন্সকে ঢাকা থেকে সপ্তাহে ২টি ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি দেয়।

তারও আগে বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্স সৌদি আরব সিভিল এভিয়েশনের কাছে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য আবেদন করে। সপ্তাহে ১১টি ফ্লাইট পরিচালণার জন্য আবেদন করলেও সোদি আরব সিভিল এভিয়েশন বিমানকে কোন সিডিউল ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়নি। তবে সপ্তাহে ২ এর অধিক নন সিডিউল ফ্লাইট পরিচালণা করতে পারবে বলে জানায়।

এই অবস্থায় কেন সাউদিয়াকে ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি দেয়া হলো তা নিয়ে ৩ মন্ত্রনালয়ের সভায় প্রশ্ন উঠে। এ প্রসংগে বেবিচকের এক কর্মকর্তা বলেন, সাউদিয়া এয়ারলাইন্সকে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়ার এক সপ্তাহ আগে বেবিচক কতৃপক্ষ বিমানকে মেইল করে বিষয়টি জানিয়েছিল।

মেইলে বলা হয়েছিল সাউদিয়া এয়ারলাইন্স ঢাকা থেকে ফ্লাইট পরিচালণার জন্য আবেদন করেছে, সৌদি আরব থেকে বিমানের ফ্লাইট পরিচালণার আবেদনের স্ট্যাটাস কি? উত্তরে বিমান বেবিচকে বলেছে, সৌদি আরব কতৃপক্ষ তাদের জানিয়েছে তারা ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি পাবে। আবেদনটি প্রসেস অবস্থায় আছে।

এভাবে ৩ দফায় বেবিচকের সংগে বিমানের এ সংক্রান্ত মেইলে আদান প্রদান হয়। সর্বশেষ মেইলে বিমান বেবিচককে জানিযেছে তারা সৌদি থেকে ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি পাচ্ছে।

যার কারণে গত বৃহস্পতিবার বেবিচক সোদিয়া এয়ারলাইন্সকে সপ্তাহে ২টি ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি দেয়। তবে ওই দিন রাতে আবার বিমানের পক্ষ থেকে বেবিচককে মেইলে জানানো হয়, বিমানকে সৌদি আরব কতৃপক্ষ সৌদি আরব থেকে ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি দেয়নি। তবে সপ্তাহে ২টি নন সিডিউল ফ্লাইট পরিচালণার অনুমতি দিয়েছে। তখন আর বেবিচকের কিছুই করার ছিল না।

সূত্র জানায়, করোনা মহামারীতে নিয়মিত ফ্লাইট স্থগিত থাকায় বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি শ্রমিক আটকে পড়েছে। বিষয়টি বিবেচনা করে প্রতি সপ্তাহে দুটিরও বেশি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি চেয়েছিল সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনস। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে গত ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকায় পুনরায় ফ্লাইট চালু করবে বলে জানায় সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনস।

প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পায় সাউদিয়া এয়ারলাইনস। কিন্তু সৌদি আরবে আবেদন করেও ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পায়নি রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। এ কারণে সৌদি আরবের এয়ারলাইনসকেও ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি বাতিল করছে বেবিচক।

গালফবাংলায় প্রকাশিত যে কোনো খবর কপি করা অনৈতিক কাজ। এটি করা থেকে বিরত থাকুন। গালফবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।
খবর বা বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: editorgulfbangla@gmail.com

সংশ্লিষ্ট খবর